অপরাধ

ভৈরব বাস টার্মিনালে পরিবহণ শ্রমিকের মৃত্যু, পরিবারের দাবি হত্যা

মো: রফিকুল ইসলাম রুবেল ভৈরব প্রতিনিধি :-
কিশোরগঞ্জের ভৈরব পৌর বাস টার্মিনালের ভেতরে বাস চাপায় তায়েব (২২) নামে এক পরিবহণ শ্রমিক মারা গেছেন। তাঁর পরিবারের দাবি—এটি হত্যাকাণ্ড। মাদক নিয়ে বিরোধে এই ঘটনা ঘটে থাকতে পারে বলে অভিযোগ তায়েবের মামার। আজ মঙ্গলবার সকাল ৯টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।
নিহত তায়েব ঢাকা-মহাখালি রোডের চলনবিল সার্ভিসের হেলপার ছিলেন। স্ত্রী ও এক শিশুপুত্র নিয়ে বাসস্ট্যান্ড সংলগ্ন আলীম সরকার বাড়িতে ভাড়া বাড়িতে থাকতেন। তাঁর গ্রামের বাড়ি নেত্রকোণা জেলায়। বাবার নাম কামাল মিয়া।
প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, তায়েব মিয়া ভৈরব পৌর বাসটার্মিনালের ভেতরে ঢোকার সময় আরাকান পরিবহণের একটি বাস তাঁকে পেছন থেকে চাপা দিলে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়। ওই বাসটির চালক ছিলেন জামান মিয়া (৩০)
জানা গেছে, ঘটনার পর থেকে জামান পলাতক রয়েছেন।
তায়েবের সহকর্মী শাকিল মিয়া জানান, সকাল ৯টার দিকে তারা দুজন বাসস্ট্যান্ডের একটি রেস্তোরাঁয় নাস্তা করেন। সেখান থেকে বের হয়ে টার্মিনালের ভেতরে ঢোকার মুখে বাসটি তায়েবকে চাপা দেয়।
নিহত তায়েবের মামা কাজল মিয়া অভিযোগ করে বলেন, ‘তার ভাগিনা তায়েব ও চালক জামান দুজনেই মাদকাসক্ত। মাদক নিয়ে তাদের মাঝে বিরোধ ছিল। সেই বিরোধের জেরেই জামান তায়েবকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করেছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.